Welcome To MCB

4.5
(12)

Publish News, Views, Consciences, Etc. 

mcb post icon

No SignUp, just

With Our Open Profile: WerMCBzen


অগ্নিঝরা মার্চ শুরু আজ
0
(0)

870007ff87cdecea111f49ce876e65f2-5a96f05d873ee.jpgঅগ্নিঝরা মার্চের প্রথম দিন আজ। রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট বিবেচনায় নিয়ে বাঙালির জীবনে অন্তর্নিহিত শক্তির উৎস এই মার্চ মাস। এ মাসেই বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এর আগে, বঙ্গবন্ধু পাকিস্তানি শাসকদের হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিলেন, ‘সাত কোটি মানুষকে কেউ দাবায়ে রাখতে পারবা না। মরতে যখন শিখেছি, তখন কেউ আমাদের দাবায়ে রাখতে পারবে না। রক্ত যখন দিয়েছি, রক্ত আরও দেবো। এ দেশের মানুষকে মুক্ত করে ছাড়বো, ইনশাল্লাহ। এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম। জয় বাংলা।’ ১৯৭১-এর ৭ মার্চ তৎকালীন রেসর্কোস ময়দানে (বর্তমানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) দেওয়া সেই ঐতিহাসিক ভাষণের সময় মুহুর্মূহু গর্জনে উত্তাল ছিল জনসমুদ্র। লাখো কণ্ঠে গর্জে ওঠা একই আওয়াজ উচ্চারতি হতে থাকে দেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে। ঢাকাসহ গোটা দেশে পতপত করে উড়তে থাকে সবুজ জমিনে আঁকা লাল সূর্যের পতাকা। গত বছরের (২০১৭) ৩০ অক্টোবর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক সেই ৭ মার্চের ভাষণকে বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি দেয় জাতিসংঘের শিক্ষা বিজ্ঞান ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কো। ইউনেস্কোর মহাপরিচালক ইরিনা বোকোভা প্যারিসের ইউনেস্কোর সদর দফতরে এই স্বীকৃতি দেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন। ইউনেস্কোর পক্ষ থেকে বলা হয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণটি মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্ট্রারে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। ইউনেস্কো বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ প্রামাণ্য ঐতিহ্যের তালিকা সংরক্ষণ করে থাকে। মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্ট্রারের অন্তর্ভুক্ত প্রামাণ্য ঐতিহ্যের তালিকা বিশ্ব প্রেক্ষাপটে গুরুত্ববহ। ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্ট্রারের লক্ষ্য বিশ্বের প্রামাণ্য ঐতিহ্য সংরক্ষণ করা এবং বিশ্ববাসী যেন ঐতিহ্য সম্পর্কে সহজে জানতে পারে, তা নিশ্চিত করা। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতির পর এবারের মার্চ মাসে বিভিন্ন অনুষ্ঠান পালনে যোগ হবে নতুন মাত্রা। আওয়ামী লীগ ৭ মার্চ উপলক্ষে সাত দিনব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এদিকে, এ মাসেই জাতি এবার পালন করবে মহান স্বাধীনতার ৪৭ বছর পূর্তি। এ উপলক্ষে মাসের প্রথম দিন থেকেই শুরু হবে সভা-সমাবেশ এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। বিভিন্ন আয়োজনে মুখরিত থাকবে গোটা দেশ। ১৯৫২ সালের একুশে ফেব্রুয়ারি ভাষার জন্য যে আগুন জ্বলে উঠছেলি, মার্চে এসে সেই আগুন যেন ছড়িয়ে পরে বাংলার সর্বত্র। এর পরে যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন, ৬২-এর শিক্ষা আন্দোলন, ৬৬-এর ছয় দফা এবং ঊনসত্তরের গণঅভ্যুথানের সিঁড়ি বেয়ে একাত্তরের মার্চ বাঙালির জীবনে নিয়ে আসে নতুন বার্তা। ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরে বঙ্গবন্ধু ঘোষণা করেন বাংলাদেশের স্বাধীনতা। এর আগে, ২৫ মার্চ রাত ১টার দিকে পাকিস্তানি সৈন্যরা বঙ্গবন্ধুকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে। ২৫ মার্চের কালরাতে পাকিস্তানিরা বাঙালির কণ্ঠ চিরতরে স্তব্ধ করে দেওয়ার লক্ষ্যে ‘অপারশেন সার্চলাইট’ নামে বাঙালি নিধনে নামে। ঢাকার রাস্তায় সৈন্যরা নির্বিচিারে হাজার হাজার মানুষকে হত্যা করে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে ছাত্র-শিক্ষককে হত্যা করে। এরপরের ঘটনাপ্রবাহ প্রতিরোধের ইতিহাস। বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে ঘরে ঘরে দুর্গ গড়ে তোলা হয়। আবালবৃদ্ধবনিতা যোগ দেন মহানমুক্তিযুদ্ধে। দীর্ঘ ৯ মাস রক্তক্ষয়ী সশস্ত্র যুদ্ধের পর ১৬ ডিসেম্বের বিজয় অর্জনের মধ্য দিয়ে জাতি লাভ করে স্বাধীনতা। বাসস।

75 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

জাতির ইতিহাসে ‘২৮ ফেব্রুয়ারী’ এক কালো দিন। একজন ব্যাক্তির ভালবাসায় এতো মানুষের জীবন দান পৃথিবীর ইতিহাসে নজিরবিহীন। – সাঈদীপুত্র মাসুদ সাঈদী

0
(0)

28471150_1620340231393252_7310038148936871464_n.jpg

আজ ২৮ ফেব্রুয়ারী।
জাতির ইতিহাসে ‘২৮ ফেব্রুয়ারী’ এক কালো দিন।

২০১৩ সালের আজকের এই দিনে শতাব্দীর নিকৃষ্ট সব মিথ্যা অভিযোগের মিথ্যা মামলায় মিথ্যা সাক্ষ্যের ভিত্তিতে এক রায়ের মাধ্যমে বিশ্বের অগণন মানুষের হৃদয় স্পন্দন, কোরআনের খাদেম আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর বিরুদ্ধে ফাঁসির আদেশ দেয়া হয়েছিল।

দেশবাসী জানতো আল্লামা সাঈদী নির্দোষ, নিরাপরাধ | তাই শুরু থেকেই তারা আল্লামা সাঈদীর বিরুদ্ধে সরকারের দায়ের করা তথাকথিত যুদ্ধাপরাধ মামলা বিশ্বাস করেনি। এরপরও যখন মিথ্যা মামলায় আল্লামা সাঈদীর বিরুদ্ধে ফাসির আদেশ দেয়া হয়েছিল তখন সচেতন জনতা আর কেউ ঘরে বসে থাকেনি।

প্রতিবাদী কোরআন প্রেমিক লাখো নারী-পুরুষ রাস্তায় নেমে এলে ২৮ ফেব্রুয়ারী থেকে ৩ মার্চ পর্যন্ত পুলিশ নির্বিচারে গুলি চালালে সারাদেশে দুই শতাধিক মানুষ শাহাদাত বরণ করেন। গ্রেফতার করা হয় সহস্রাধিক নারী-পুরুষ।

একজন ব্যাক্তির ভালবাসায় এতো মানুষের জীবন দান পৃথিবীর ইতিহাসে নজিরবিহীন। জনতা সেদিন প্রমান করে দিয়েছিল, ‘যুদ্ধাপরাধ নয়, কোরআনের দাওয়াত ঘরে ঘরে পৌছে দেয়াই আল্লামা সাঈদীর অপরাধ।’

যেসব ভাই-বোনেরা কোরআনের খাদেম আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর ভালবাসায় জীবন দিয়েছেন মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীন তাদের সকলকে শাহাদাতের সর্বোচ্চ মর্যাদা দান করুন। তাদের সকল ভুল ত্রুটি মাফ করে দিন আর তাদেরকে জান্নাতের মেহমান বানিয়ে নিন।

আল্লাহ রাব্বুল আলামীন কোরআনের পাখী আল্লামা সাঈদীকে আপন কুদরতে মুক্তির ফয়সালা করে দিন। আল্লামা সাঈদীকে কোরআনের ময়দানে ফিরিয়ে দিন। তাকে সুস্থ্য রাখুন। তার নেক হায়াত দারাজ করুন।

আজকের এই দিনে মহান মালিকের দরবারে এইই আমাদের প্রার্থনা।

Masood Sayedee

75 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

প্রকৌশল দফতরে দুর্নীতির কারণ ‘প্রভাবশালীদের তদবির’

0
(0)

09cd829932cd8f94451c5c8ea3b08840-5a955e9d1418c.jpg

সরকারি বিভিন্ন প্রকৌশল দফতরে  দুর্নীতি ও অনিয়মের পেছনে রয়েছে প্রভাবশালীদের তদবির। দফতরগুলোতে তদবিরবাজদের দৌরাত্ম্যের কারণে অনিয়ম বেশি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সরকারি বিভিন্ন প্রকৌশল দফতরের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে দুর্নীতি দমন কমিশনের মতবিনিময়ে এসব বিষয় উঠে আসে। এই প্রভাবশালী ও তদবিরবাজদের প্ররোচনায় অনৈতিক কাজ না করার জন্য কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।

মতবিনিময় সভায় প্রকৌশলীরা জানান—ভূমি অধিগ্রহণ, এস্টিমেশনের তথ্য ফাঁস, রেট অব সিডিউল নিয়ে বেশি ঝামেলা হচ্ছে। প্রভাবশালীদের তদবির ও চাপের কারণে অনিয়মগুলো হচ্ছে।

সভায় দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেন, ‘প্রকৌশল সংস্থাগুলো দেশের বাজেটের ৮০ ভাগ ব্যয় করে। এই ব্যয় হতে হবে স্বচ্ছ এবং দুর্নীতিমুক্ত। আর্থিক বিষয়ে অডিট করা হয়। কিন্তু কাজের অডিট করা হয় না। আমরা কাজ করি, কিন্তু কাজের গুণগত মান নিশ্চিত করি না। আমরা প্রকল্প গ্রহণ করি, কিন্তু প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যথাযথভাবে যাচাই করি না। এই অবস্থার অবসান হওয়া প্রয়োজন।’

প্রকৌশল সংস্থার বিরুদ্ধে প্রায়ই দুদকে অভিযোগ আসে জানিয়ে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ‘দুদকে প্রকৌশল সংস্থার কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে প্রায়ই বিভিন্ন অভিযোগ আসে। আমরা এগুলো বিশ্বাস করতে চাই না।আমরা   তাই আপনাদের কথা শুনতে চাই। এটি পারস্পরিক সহযোগিতামূলক কার্যক্রমের একটি প্রক্রিয়া। সবাই যদি আর্থিক বিষয়ে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মধ্যে না আসেন, তাহলে দেশ এগোবে না এবং মানুষও আমাদের বিশ্বাস করবে না ।’

বিভিন্ন প্রকল্পের জন্য দামি গাড়ি কেনা হয়। কিন্তু প্রকল্প শেষে এসব গাড়ি কোথায় যায়, কারা ব্যবহার করেন—এ নিয়েও প্রশ্ন তোলেন কমিশনের চেয়ারম্যান। তিনি বলেন, ‘প্রকল্পের নামে নিশান পেট্রোল বা প্রাডো গাড়ি আমদানি করি কেন? কেন প্রগতি থেকে গাড়ি কিনি না? প্রকল্প শেষে গাড়িগুলো কারা ব্যবহার করেন? কোথায় যায়?’

রাজউক সম্পর্কে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ‘প্লট দিচ্ছেন। প্রকল্প গ্রহণের পূর্বে উপকারভোগী জনগণের সঙ্গে আলোচনা করা প্রয়োজন। প্রকল্পে কনসালটেন্ট রাখা হয়, কিন্তু উপকারভোগী জনগণের সঙ্গে আলোচনা করা হয় না। এটা কেমন কথা। প্রকল্প গ্রহণ, এস্টিমেট প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন প্রতিটি স্তরেই উপকারভোগীদের সঙ্গে কনসালটেশনের ব্যবস্থা থাকা উচিত।’

প্রকল্প নির্বাচন ও বাস্তবায়নে তদবির ও প্রভাবমুক্ত থেকে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ‘তদবিরবাজি এবং অনৈতিক প্রভাবই সবচেয়ে বড় দুর্নীতি। আপনারা পদ্ধতি অনুসরণ করে কাজ করবেন। প্রভাব এবং তদবিরকে আমলে নেবেন না। যদি কোনও প্রভাবশালী আপনাদের কাছে অনৈতিক কিছু দাবি করে, তাহলে দুর্নীতি দমন কমিশনকে জানাবেন। আপনাদের জন্য কমিশনের দ্বার সবসময় উন্মুক্ত। আপনারাই দেখেছেন প্রভাবশালী এবং প্রভাবহীন সবাই কীভাবে দুদক আইনের আওতায় এসেছে। এধারা অব্যাহত রাখা হবে। আপনারা দায়িত্ব পালন করবেন বিদ্যমান আইন, বিধি-বিধান অনুসারে। কোনও প্রভাবশালীর চাপে অথবা অনৈতিক যোগসাজশে কোনও কাজ করলে, তার দায়িত্ব আপনাদেরই নিতে হবে। কোনটি ভুল আর কোনটি ইচ্ছাকৃত অনৈতিক কাজ— এটা কমিশন অনুধাবন করতে পারে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা ইলেকট্রনিক টেন্ডার করি, আবার এস্টিমেটের গোপনীয় তথ্য বিশেষ ব্যক্তিকে জানিয়ে দেই। এই অবস্থা চলতে পারে না। দেশকে দুর্নীতির করাল গ্রাস থেকে মুক্ত করতে হলে পদ্ধতিগত উন্নয়ন করতে হবে।’

মতবিনিময় সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্যে রাখেন দুদক কমিশনার এএফএম আমিনুল ইসলাম, সচিব ড. মো. শামসুল আরেফিন, মহাপরিচালক মো. জাফর ইকবাল, রাজউক চেয়ারম্যান মো. আবদুর রহমান, বিআইডব্লিইটিএ’র প্রধান প্রকৌশল মো. মঈদুল ইসলাম, সিভিল এভিয়েশনের প্রধান প্রকৌশলী শুভেন্দু বিকাশ সোস্বামী, প্রধান স্থপতি কাজী গোলাম নাসের, পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসেন, বিআইডব্লিউটিসি’র চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মফিজ্জল হক, হাইটেক পার্ক অথরিটির এমডি হোসনে আরা বেগম, সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. আবুল কাশেম ভুইয়া প্রমুখ।

22 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!


0
(0)

টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন আগামী ২৮ মে পঞ্চম ধাপে অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলার আটটি ইউনিয়নের মধ্যে সীমানা জটিলতার মামলা থাকায় যাদবপুর ও নবগঠিত বহুরিয়া ইউনিয়নের নির্বাচন স্থগিত রয়েছে। এছাড়া মেয়াদ পূর্ণ না হওয়ায় গজারিয়া ও নবগঠিত দাড়িয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন এক বছর পর অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এছাড়া বাকি চারটি ইউনিয়ন পরিষদের প্রায় ২৬ জন সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী নিজ নিজ এলাকায় দিন-রাত দোয়া ও ভোটারদের সমর্থন পেতে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এরমধ্যে ১৯ জন প্রার্থীই আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী। এছাড়া চারজন বিএনপি, তিনজন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশী। সম্ভাব্য চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য প্রার্থীরা নিজ নিজ এলাকা চষে বেড়াচ্ছেন। তারা বিভিন্ন জাতীয় দিবস উপলক্ষে পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুন ও বিলবোর্ড দিয়ে নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকায় প্রচারণায় চালিয়ে যাচ্ছেন। এছাড়া এলাকার স্কুল-কলেজ, মসজিদ, মাদ্রাসার সভা-সেমিনার, সাংস্কৃতিক ও সামাজিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে প্রার্থিতার জানান দিয়ে বিভিন্ন ধরনের প্রতিশ্র“তিও দিচ্ছেন। পাশাপাশি তারা তৃণমূলসহ দলীয় শীর্ষ নেতাদের কাছে লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন। কাকড়াজান ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান শামসুল হক পান্না, দুলাল হোসেন, তারিকুল ইসলাম বিদ্যুৎ আওয়ামী লীগ থেকে এবং উপজেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান সাজু সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। বহেড়াতৈল ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের ৫ জন ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সম্ভাব্য একজন চেয়ারম্যান প্রার্থী মাঠে নেমেছেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য গোলাম ফেরদৌস, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মঞ্জু এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ওয়াদুদ হোসেন আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী। অন্যদিকে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের মো. কামরুল হাসান মনোনয়নপ্রত্যাশায় মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। হাতীবান্ধা ইউনিয়নে সম্ভাব্য পাঁচ প্রার্থী আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী। অপর একজন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের। তারা হলেন- বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান নবীন হোসেন, মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, শিবলু সিকদার, নরেশ চন্দ্র সরকার, শাহজাহান খান রবিন, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আতোয়ার রহমান। কালিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের ৬ জনসহ মোট ১০ জন সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী রয়েছেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আজহারুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এসএম কামরুল হাসান, মোতালেব হোসেন সিকদার, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন সাথী, হুমায়ূন কবীর বিপ্লব ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য জামাল মিয়া আ’লীগের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনী এলাকায় প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। এদিকে বিএনপি থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশায় নূরুল ইসলাম নূরু, আরিফ হোসেন আমজাদ, লিটন আহমেদ আকাশ এলাকায় প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। এছাড়া সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি আবদুল হালিম সরকারও প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

35 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

চীনের পূর্বাঞ্চলের শানতুং প্রদেশে একটি নৈশ কোচের সঙ্গে দু’টি ট্রাকের সংঘর্ষে আটজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত আরও ১৭ জন।

শনিবার দেশটির স্থানীয় সময় সকালে উপকূলীয় শহর কিংডাওয়ের প্রধান সড়কে দুর্ঘটনাটি ঘটে বলে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

38 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

এল সালভাদরে পানামার আইনি পরামর্শক প্রতিষ্ঠান মোসাক ফনসেকার কার্যালয়ে অভিযান চালিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার দেশটির অ্যাটর্নি জেনারেল ডগলাস মেলেনদেজ তত্ত্বাবধানে ওই অভিযান চালানো হয়। খবর বিবিসি ও রয়টর্সের। অভিযানে এল সালভাদরে মোসাক ফনসেকার ওই শাখা থেকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী বিভিন্ন নথি ও ২০টি কম্পিউটার জব্দ করা হয়েছে। এ সময় কার্যালয়টিতে কর্মরত সাত কর্মীকেও জিঞ্জাসাবাদ করা হয়। তবে কাউকে আটক করা হয়নি। এল সালভাদরের অ্যাটর্নি জেনারেলের দফতর থেকে বলা হয়েছে,কার্যালয়টি থেকে মোসাক ফনসেকারের চিহ্ন একদিন আগেই অপসারণ করা হয়। প্রতিষ্ঠানটির একজন কর্মীর সূত্রে জানা যায়,ফার্মটি এখান থেকে চলে যাচ্ছে। মোসাক ফনসেকার ওই শাখা থেকেও বিশ্বব্যাপী তাদের ক্লায়েন্টদের সার্ভিস দিতে সক্ষম ছিল। এল সালভাদরের স্থানীয় একটি পত্রিকার বলা হয়েছে, দেশটির নাগরিকরা কর্তৃপক্ষকে না জানিয়েই মোসাক ফনসেকাকে ব্যবহার করে গোপনে সম্পদ ক্রয় করত। তবে কোনো ধরনের বেআইনি কাজ করেনি বলে দাবি করেছে ফার্মটি। ২০১৪ সালে মোসাক ফনসেকার এক কোটি দশ লাখ গোপন নথি ফাঁস হয়ে যায়।   এসব নথির উপর দীর্ঘ অনুসন্ধান শেষে গত রোববার ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অব ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টস (আইসিআইজে) মোসাক ফনসেকার ১ কোটি ১৫ লাখ নথি ফাঁস করে।এতে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র, সরকারপ্রধান, ব্যবসায়ী, তারকা ও ক্ষমতাধর ব্যক্তি বা তাদের আত্মীয়-বন্ধুদের অর্থ পাচারের তথ্য উঠে আসে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে। এরই মধ্যে পদত্যাগ করেছেন আইসল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী সিগমুন্ড গুনলাগসন। ফাঁস হওয়া নথির ভিত্তিতে ফ্রান্স, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রিয়া, সুইডেন ও নেদারল্যান্ডসে কর ফাঁকি ও সম্পদ গোপনের বিষয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।

32 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

দীর্ঘদিন ঝুলে থাকা দুই খণ্ডে বিভক্ত ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের কমিটির ঘোষণা করা হবে রোববার। এখন থেকে ‘ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ (উত্তর)’ ও ‘ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ (দক্ষিণ) ’ এই দুটি নামে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ কাজ করবে।

নতুন কমিটি নিয়ে দলের নীতি নির্ধারণী পর্যায়ে এখন চলছে চূড়ান্ত আলোচনা। দুই মহানগর কমিটির দুই সভাপতিও প্রায় চূড়ান্ত। দলের সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা উত্তরের নেতৃত্বে আসছেন সাংসদ এ কে এম রহমতউল্লাহ এবং দক্ষিণের নেতৃত্বে আবুল হাসনাত।

আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা জানিয়েছেন, গত বছর এপ্রিলে ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনের পর কেন্দ্রীয় নেতা সাবেক খাদ্যমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাক ও সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী ফারুক খানকে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের জন্য পৃথক দুই কমিটি করার দায়িত্ব দেন শেখ হাসিনা। ফারুক খান উত্তরে ঢাকা-১১ আসনের সাংসদ এ কে এম রহমতুল্লাহ ও মো. সাদেক খানকে যথাক্রমে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক করে খসড়া কমিটি প্রস্তাব করেন। দক্ষিণের জন্য আবদুর রাজ্জাক সভাপতি হিসেবে এম এ আজিজ ও শাহে আলম মুরাদকে সাধারণ সম্পাদক প্রস্তাব করে কমিটি চূড়ান্ত করে সভানেত্রী শেখ হাসিনার কাছে জমা দেন। তবে গত ২৩ জানুয়ারি এম এ আজিজ মারা যাওয়ায় তাঁর স্থলে লালবাগ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাতকে সভাপতি হিসেবে চূড়ান্ত করেন দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা।

জানা গেছে, ঢাকা দক্ষিণের নতুন কমিটিতে সভাপতি হিসেবে এম এ আজিজের নাম চূড়ান্ত ছিল। তার মৃত্যুর পর এই পদে একজন ঢাকাইয়াকে মনোনীত করতে চাইছিলেন দলের সভাপতি শেখ হাসিনা। গত ১১ মার্চ লালবাগ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাতকে গণভবনে ডেকে নেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে প্রায় ৭ মিনিট প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তার কথা হয়।

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের এক নেতা জানান, মহানগর কমিটির উত্তর ও দক্ষিণের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণার পরই সব থানা, ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন কমিটি গঠন করা হবে।

দলীয় অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব, ঢাকাকে দুই সিটি করপোরেশনে ভাগ এবং দলীয় কর্মকাণ্ডকে গতিশীল করতে আওয়ামী লীগ এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটির নীতি নির্ধারকেরা বলেছেন।

এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ‘ঢাকাতে দুটি সিটি করপোরেশন ভাগ করা হয়েছে, সবকিছু এখন দুই ভাগে পালিত হচ্ছে। এ কারণে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের দুটি কমিটি হবে। আগামীকাল রোববার বেলা ১১টায় ধানমন্ডি কার্যালয়ে এ কমিটি ঘোষণা করা হবে।’

কেন্দ্রীয় ও ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের তিনজন নেতা বলেন, মহানগর আওয়ামী লীগের পরিধি অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। গত ৫ জানুয়ারিতেও মহানগর উত্তর এবং দক্ষিণ আলাদাভাবে কর্মসূচি পালন করেছে। এ ছাড়া সিটি করপোরেশনও দুটি। একটি কমিটিতে সবাইকে জায়গা দেওয়া সম্ভব হবে না। সুতরাং একটি কমিটি দেওয়া হলে বিশৃঙ্খলা ও গ্রুপিং হবে।

সর্বশেষ ২০০৩ সালের ১৮ জুন সম্মেলনের মাধ্যমে মেয়র মোহাম্মদ হানিফকে সভাপতি ও মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়াকে সাধারণ সম্পাদক করে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন করা হয়। ২০০৬ সালের ২৮ নভেম্বর মেয়র হানিফ মারা গেলে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে এম এ আজিজকে দায়িত্ব দেয়া হয়।

আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী প্রতি তিন বছর পর সম্মেলন করার কথা থাকলেও প্রায় ১২ বছর পর ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ২০১২ সালের ২৭ ডিসেম্বর। সম্মেলনে আগের কমিটির সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) এম এ আজিজ ও সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়াকে নতুন কমিটি ঘোষণা না হওয়া পর্যন্ত দায়িত্বরত থাকতে বলা হয়। একইভাবে আগের কমিটির স্ব স্ব পদের নেতারাই বিগত দিনে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

37 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

হায়দরাবাদে কেমন কাটছে মুস্তাফিজুর রহমানের? সময়টা যে ভালোই কাটছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাঁর নানা রকম ছবি দেখেই বোঝা যাচ্ছে। সতীর্থদের সঙ্গে পুল খেলছেন, ভক্তদের সঙ্গে সেলফি তুলছেন। মুস্তাফিজের সেজো ভাই মোখলেসুর রহমানও কাল জানালেন, এখন পর্যন্ত কোনো সমস্যায় পড়েননি বাংলাদেশ দলের এই বাঁহাতি পেসার। সবকিছু বেশ উপভোগই করছেন। মুস্তাফিজের আরও ভালো লাগার কথা টম মুডির প্রশংসা শুনে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেই হায়দরাবাদের কোচের সঙ্গে দেখা হয়েছিল তাঁর। ২০ বছর বয়সী এই বোলিং-বিস্ময়ের প্রশস্তিগাথা ছিল মুডির কণ্ঠে, ‘সে দারুণ প্রতিভাবান এক তরুণ খেলোয়াড়। সুযোগের অপেক্ষায় আছে এবং সে শেখার জন্য উন্মুখ। ক্রিকেটের মতো বড় খেলাটিকে মুস্তাফিজ নিয়েছে বেশ সহজভাবে। সেটি আমরা বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপে এরই মধ্যে দেখেছি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বড় ম্যাচ এবং ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও দেখেছি। বড় ম্যাচে সে খুবই স্বচ্ছন্দ এবং নির্ভার থাকে। আমাদের বিশ্বাস, এখানে সে দ্রুতই মানিয়ে নিতে পারবে।’ মুস্তাফিজ তো আছেনই, হায়দরাবাদের পেস আক্রমণ শক্তিশালী হয়ে উঠেছে ভারতের অভিজ্ঞ বাঁহাতি পেসার আশিস নেহরার কারণেও। দুজনকেই স্বাগত জানিয়েছেন মুডি, ‘পেস আক্রমণে আমরা কিছু বাঁহাতি বিকল্প রাখতে চেয়েছিলাম। আমাদের মনে হয়েছে, সংক্ষিপ্ততম সংস্করণে তারা খুবই কার্যকর। যেহেতু দুজনই বিশ্বমানের বোলার তাই নেহরা-মুস্তাফিজকে আমাদের দলে নেওয়া হয়েছে।’ আইপিএলে মুস্তাফিজকে খেলতে হবে বিদেশি কোটায়। সব ম্যাচে তিনি নামতে পারবেন কি না সেটি তাই নিশ্চিত নয়। তবে সুযোগ পেলে নিশ্চয়ই আস্থার প্রতিদান দিতে চাইবেন মুস্তাফিজ। হায়দরাবাদের প্রথম ম্যাচ ১২ এপ্রিল, চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে মুস্তাফিজদের প্রতিপক্ষ রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু।

37 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

৯ এপ্রিল দুপুর ১২টায় চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স এর মিলনায়তনে সিএমসিসিআই প্রেসিডেন্ট খলিলুর রহমান’র সভাপতিত্বে এনবিআর চেয়ারম্যান মো: নজিবুর রহমান এর সাথে ২০১৬-১৭প্রাক বাজেট আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য ও পদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ, স্থানীয় কর এবং কাস্টম কমিশনারবৃন্দ, সিএমসিসিআই পরিচালক, সদস্যবৃন্দ, চিটাগাং ট্যাক্সবার এসাসিয়েশান এর প্রেসিডেন্ট এবং সেক্রেটারী এবং সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন।
সভায় সিএমসিসিআই ভাইস প্রেসিডেন্ট আলী হোসেন আকবর আলী, ভাইস প্রেসিডেন্ট এ.এম. মাহবুব চৌধুরী সহ পরিচালক মোহাম্মদ আব্দুছ ছালাম, ড: মহসিন জিল্লুর করিম, ইঞ্জিনিয়ার মো: শাখাওয়াত হোসেন, এম.এ. মালেক, লিয়াকত আলী চৌধুরী, এম. এ. মালেক, আলহাজ্ব মো: শফি, মো: লোকমান হাকিম, মো: ডব্লিউ আর.আই.মাহমুদ এবং মোহাম্মদ মহসিন। সূচনা বক্তব্য পাঠ করেন সিএমসিসিআই ভাইস প্রেসিডেন্ট আলী হোসেন আকবর আলী। পরে এ.এম. মাহবুব চৌধুরী বিস্তারিত বাজেট প্রস্তাব পেশ করেন।তারা শিল্প বান্ধব চট্রগ্রাম ও সত্যিকার বানিজ্যিক রাজধানী প্রতিষ্টায় উন্নয়নে আলাদা বাজেটের প্রস্তাব ও করেন ।
চট্রগ্রাম চেম্বার ঃ
এর আগে সকাল ১১টায় চট্রগ্রাম চেম্বারের আয়োজনে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে মাহবুবুল আলমের সভাপতিত্বে প্রাক-বাজেট বিষয়ে এক মতবিনিময় সভাতে এনবিআর চেয়ারম্যান মো: নজিবুর রহমান প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেছেন,বর্তমান সরকার অর্থনৈতিক উন্নয়নে ২৫বছরের একটি বিশাল গোল নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে । আর শিল্প বান্ধব ও করের বোঝা কমিয়ে সামনে একটি ব্যবসায়ী মনোভাব প্রুত বাজেট ঘোষনা করতে যাচ্ছেন সরকার ।২য় রাজধানী খ্যাত চট্রগ্রাম কে আলাদা বাজেটের বিষয়ে অর্থমন্ত্রীকে অবগতি করবেন বলেও সভাতে জানান এনবিআর চেয়ারম্যান ।আর আগামী ৫বছরের মধ্যেই মধ্যম আয়ের রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বে বাংলাদেশ পরিগণিত হবে ।

সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন,চট্রগ্রাম চেম্বার থেকে শুল্ক,ভ্যাট,আয়কর সংক্রান্ত ১৯৮টি প্রস্তাব জাতীয় রাজস্ব বোর্ড পাঠিয়েছি ।এর মধ্যে শুক্ল-১৪২টি,ভ্যাট-২১টি,আয়কর-৫৫টি প্রস্তাব রয়েছে ।ভৌগলিক অবস্থানগত কারণে চট্রগ্রামের গুরুত্ব খুবই অপরিসীম।সেই লক্ষে দেশ-বিদেশী বিনিয়োগ কারীদের আকৃষ্ট করতে ও বিনিয়োগ সৃষ্টির প্রয়াসে অবকাঠামোগত উন্নয়ন জরুরী ।
কর্ণফুলী টার্নেল,বন্দও সম্প্রসারণ,বে-টার্মিনাল নির্মাণ,চট্রগ্রাম-ঢাকা হাইওয়ের ৪ লাইনের কাজ শুরু করা ,কয়লা ভিত্তিক১৩২০মেগাওয়াট ক্ষমতার বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন করা এবং মিরস্বরাই ও আনোয়ারা স্পেশাল ইকোনিমিক জোন তৈরি,রিং রোড সমূহ দ্রুত বাস্তবায়ন করার জন্য পর্যাপ্ত পরিমান বাজেট বরাদ্ধ করে প্রকল্প অনুমোদন করার জোর দাবি তুলেন ।এছাড়া সভাপতি বাড়ী ভাড়া বিষয়টি আয়কর নির্ধারনে ১০%হারে না বাড়াতে এবং ব্যাংক নীতিমালা না আনার জন্য এনবিআর চেয়ারম্যান কে অনরোধ জানান ,প্রতি বছর বাড়ী ভাড়া বাড়ানো কোন মতেই সম্বভ নহে বলে জানান।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন-চেম্বারের সিৎ সহ-সভাপতি নুরুন নেওয়াজ সেলিম, সহ -সভাপতি-সৈয়দ জামাল আহম্মদ,রাজস্ব বোর্ড সদস্য-মোঃ ফরিদ উদ্দিন,ব্যারিষ্টার জাহাঙ্গীর হোসেন ,পারভেজ উকবাল,মোঃ বেলাল উদ্দিন,চেম্বার পরিচালক-মাহফুজূল হক শাহ,ইঃ মোঃ আলী আহম্মদ সহ বিভিন্ন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের নেতৃবৃন্দ ।

34 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠানে কড়াকড়ি আরোপের জন্য সরকারকে সাধুবাদ জানিয়েছে ওলামা লীগ। একই সঙ্গে বর্ষবরণের অনুষ্ঠান পুরোপুরি বন্ধেরও দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি। শনিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি শেষে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ওলামা লীগ এ দাবি জানায়। আর প্রথমবারের মতো চালু হওয়া বৈশাখী উৎসব ভাতা বাদ দিয়ে ঈদ-ই মিলাদুন্নবিতে উৎসব ভাতা দেয়ারও দাবি জানিয়েছেন সংগঠনটির নেতারা। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘পহেলা বৈশাখের নামে চারুকলার গাঁজাখোর মিডিয়া ও পুঁজিবাদী বেনিয়াগোষ্ঠি বাণিজ্য করছে। ওদের শোষণ থেকে জনগণকে বাঁচাতে হবে।’ পহেলা বৈশাখ মুসলমানদের ‘ইসলামহীন’ করার ‘অপতৎপরতা’ বলেও মন্তব্য করেছে ওলামা লীগ। মানববন্ধনে ‘জাতীয় শিক্ষানীতিকে ইসলামবিদ্বেষী’ অ্যাখ্যা দিয়ে বলা হয়, ‘শিক্ষামন্ত্রী আওয়ামী লীগের কাঁধে চড়ে তার নাস্তিক্যবাদী শিক্ষা দর্শন ৯৮ ভাগ মুসলমানের ওপর চাপিয়ে দিচ্ছে।’ ওলামা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মাওলানা মুহম্মদ আবুল হাসান শেখ শরীয়তপুরীর পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দাবি করা হয়, আওয়ামী লীগ ‘সমর্থিত’ সমমনা ১৩টি ইসলামিক সংগঠন এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

31 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

বাংলাদেশের আকাশে আজ ১৪৩৭ হিজরি সনের পবিত্র রজব মাসের চাঁদ দেখা গেছে। ফলে আগামীকাল ৯ এপ্রিল ২০১৬ খ্রি. শনিবার থেকে পবিত্র রজব মাস গণনা শুরু হবে। সেই হিসেবে আগামী ২৬ রজব ১৪৩৭, ৪ মে বুধবার দিবাগত রাতে সারাদেশে পবিত্র লাইলাতুল মি‘রাজ পালিত হবে।
আজ সন্ধ্যায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মুকাররম সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়য়ের যুগ্ম-সচিব মোঃ আমজাদ আলী।
সভায় প্রধান তথ্য অফিসার এ কে এম শামীম চৌধুরী, বাংলাদেশ টেলিভিশনের পরিচালক (প্রশাসন) শাখাওয়াত হোসেন, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ আবদুর রহমান, স্পারসোর সিএসও মোঃ শাহ আলম, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সচিব মোঃ অহিদুল ইসলাম, ঢাকা আলিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ প্রফেসর সিরাজ উদ্দিন আহমেদ, বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, চকবাজার শাহী জামে মসজিদের খতীব মাওলানা শেখ নাঈম রেজওয়ান ও লালবাগ শাহী জামে মসজিদের খতিব আবু রায়হান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

38 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

সাউথ কোরিয়ান প্রতিষ্ঠান স্যামসাং নতুন এক প্রযুক্তির জন্য পেটেন্ট করল। আর তা হলো স্মার্ট কন্টাক্ট লেন্স প্রযুক্তি। যেখানে ব্যবহারকারীরা চোখে লেন্স পড়ে অগমেন্টেড রিয়েলিটির অভিজ্ঞতা নিতে পারবে। এই বিশেষ কন্টাক্ট লেন্সে থাকবে একটি ছোট ডিসপ্লে, একটি ক্যামেরা, একটি অ্যান্টেনা এবং একাধিক সেন্সর। চোখের পাতাই নিয়ন্ত্রণ করবে এই স্মার্টলেন্স ক্যামেরা। এমন কী পলক ফেললেই উঠে যাবে ছবি। চোখের পলক ফেলা বা নড়াচড়ার মাধ্যমে ব্যবহারকারী ডিসপ্লে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে। যেহেতু ডিভাইসটি অনেক ছোট তাই পাওয়ার প্রসেসের জন্য এটিকে স্মার্টফোনের সঙ্গে যুক্ত করার মতো করে ডিজাইন করা হবে। পেটেন্ট অ্যাপ্লিকেশন অনুযায়ী, এই কন্টাক্ট লেন্সটি স্মার্ট গ্লাসের তুলনায় আরো ভালো ইমেজ কোয়ালিটি দেবে। তবে স্যামসাংয়ের এই পেটেন্ট করা পণ্য কবে নাগাদ আসবে সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছুই জানা যায়নি। সার্চ জায়ান্ট গুগল ইতোমধ্যে এ ধরনের ডিভাইস ডেভেলপ করেছে। আর বর্তমানে এই লেন্স পরীক্ষামূলক অবস্থায় আছে। এই লেন্সটি চোখের পানি থেকে গ্লুকোজ পরিমাপ করে ডায়াবেটিক নির্ণয় করতে পারে।

41 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

বাঁশখালিতে কাফনের কাপড় পরে উপজেলা ঘেরাও করার নামে কোন ধরণের বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি করার চেষ্টা করা হলে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী কঠোর ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবে বলে হুঁসিয়ারী উচ্চারণ করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি শনিবার চট্টগ্রামের বোয়ালখালিতে নবনির্মিত ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন উদ্বোধন করতে এসে দুপুর দুইটায় সাংবাদিকদের সাথে এক সংক্ষিপ্ত মতবিনিময়কালে এ হুঁসিয়ারীর কথা জানান।

উল্লেখ্য, শুক্রবার বাঁশখালির গন্ডামারায় এলাকাবাসীর এক সমাবেশ থেকে গন্ডামারা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও বসতভিটা ও গোরস্থান রক্ষা সংগ্রাম কমিটির আহ্বায়ক লেয়াকত আলী ২৪ ঘন্টার মধ্যে নির্মাণাধীন কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র বাঁশখালি থেকে সরানোর ঘোষণা না দিলে রোববার সকালে কাপনের কাপড় পড়ে উপজেলা প্রশাসন ঘেরাও করার কর্মসুচি দেন।

বিকালে স্বরাষ্টমন্ত্রী পৌরসভার ফায়ার ব্রিগেট চত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে নতুন এ ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন উদ্বোধন করবেন।

মতবিনিময়কালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কেউ শান্তিপূণ কর্মসূচি পালন করলে কোন সমস্যা নেই। কিন্তু শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির নামে কোন ধরণে বিশৃঙ্খলা মেনে নেয়া হবে না।

মন্ত্রী বাঁশখালি কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র এবং সম্প্রতি পরিস্থিতি বিষয়ে বলেন, বাঁশখালির এ আন্দোলনের পিছনে কারো ব্যাক্তি স্বার্থ নয়েছে কিনা বা কাদের প্ররোলচনায় এ হত্যাকান্ড হয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

সম্প্রতি সময়ে দুই ব্লগার হত্যাকান্ডের সাথে কারা জড়িত এমন প্রশ্নের জবাবে সরাসরি কোন মন্তব্য করতে রাজি না হয়ে তিনি বলেন, তদন্ত সংস্থার প্রতি সরকারের আস্থা রয়েছে বিষয়টি তারা তদন্ত করছেন। এ বিষয়ে বেশী কিছু মন্তব্য করা ঠিক হবে না।

স্থানীয় সংসদ সদস্য ও জাসদ নেতা মাঈনুদ্দিন খান বাদলের সরোয়ালীস্থ গ্রামের বাড়িতে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় অনুষ্ঠানে অন্যন্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সংসদ সদস্য মাঈনুদ্দিন খান বাদল, রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা এহসানুল হায়দার বাবুল, দক্ষিণ জেলা জাসদ নেতা আব্দুল কাদের সুজন, বোয়ালখালি উপজেলা জাসদ সভাপতি মনসপ আলী, সাধারণ মনিরুদ্দিন খান, জেলা পুলিশ সুপার হাফিজ আক্তার প্রমুখ।

44 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

*please excuse the google/sponsors ads. Although Ad may suddenly bring best thing for you.



mcb post icon
: ) Play with MCB Posts 
as if those are your posts !

Power to Edit/Add/Improve any Post ! 

Visit  MCB Policy





  My Post:

0
(0)

টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন আগামী ২৮ মে পঞ্চম ধাপে অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলার আটটি ইউনিয়নের মধ্যে সীমানা জটিলতার মামলা থাকায় যাদবপুর ও নবগঠিত বহুরিয়া ইউনিয়নের নির্বাচন স্থগিত রয়েছে। এছাড়া মেয়াদ পূর্ণ না হওয়ায় গজারিয়া ও নবগঠিত দাড়িয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন এক বছর পর অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এছাড়া বাকি চারটি ইউনিয়ন পরিষদের প্রায় ২৬ জন সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী নিজ নিজ এলাকায় দিন-রাত দোয়া ও ভোটারদের সমর্থন পেতে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এরমধ্যে ১৯ জন প্রার্থীই আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী। এছাড়া চারজন বিএনপি, তিনজন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশী। সম্ভাব্য চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য প্রার্থীরা নিজ নিজ এলাকা চষে বেড়াচ্ছেন। তারা বিভিন্ন জাতীয় দিবস উপলক্ষে পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুন ও বিলবোর্ড দিয়ে নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকায় প্রচারণায় চালিয়ে যাচ্ছেন। এছাড়া এলাকার স্কুল-কলেজ, মসজিদ, মাদ্রাসার সভা-সেমিনার, সাংস্কৃতিক ও সামাজিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে প্রার্থিতার জানান দিয়ে বিভিন্ন ধরনের প্রতিশ্র“তিও দিচ্ছেন। পাশাপাশি তারা তৃণমূলসহ দলীয় শীর্ষ নেতাদের কাছে লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন। কাকড়াজান ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান শামসুল হক পান্না, দুলাল হোসেন, তারিকুল ইসলাম বিদ্যুৎ আওয়ামী লীগ থেকে এবং উপজেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান সাজু সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। বহেড়াতৈল ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের ৫ জন ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সম্ভাব্য একজন চেয়ারম্যান প্রার্থী মাঠে নেমেছেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য গোলাম ফেরদৌস, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মঞ্জু এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ওয়াদুদ হোসেন আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী। অন্যদিকে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের মো. কামরুল হাসান মনোনয়নপ্রত্যাশায় মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। হাতীবান্ধা ইউনিয়নে সম্ভাব্য পাঁচ প্রার্থী আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী। অপর একজন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের। তারা হলেন- বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান নবীন হোসেন, মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, শিবলু সিকদার, নরেশ চন্দ্র সরকার, শাহজাহান খান রবিন, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আতোয়ার রহমান। কালিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের ৬ জনসহ মোট ১০ জন সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী রয়েছেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আজহারুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এসএম কামরুল হাসান, মোতালেব হোসেন সিকদার, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন সাথী, হুমায়ূন কবীর বিপ্লব ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য জামাল মিয়া আ’লীগের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনী এলাকায় প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। এদিকে বিএনপি থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশায় নূরুল ইসলাম নূরু, আরিফ হোসেন আমজাদ, লিটন আহমেদ আকাশ এলাকায় প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। এছাড়া সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি আবদুল হালিম সরকারও প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

35 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

চীনের পূর্বাঞ্চলের শানতুং প্রদেশে একটি নৈশ কোচের সঙ্গে দু’টি ট্রাকের সংঘর্ষে আটজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত আরও ১৭ জন।

শনিবার দেশটির স্থানীয় সময় সকালে উপকূলীয় শহর কিংডাওয়ের প্রধান সড়কে দুর্ঘটনাটি ঘটে বলে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

38 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

এল সালভাদরে পানামার আইনি পরামর্শক প্রতিষ্ঠান মোসাক ফনসেকার কার্যালয়ে অভিযান চালিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার দেশটির অ্যাটর্নি জেনারেল ডগলাস মেলেনদেজ তত্ত্বাবধানে ওই অভিযান চালানো হয়। খবর বিবিসি ও রয়টর্সের। অভিযানে এল সালভাদরে মোসাক ফনসেকার ওই শাখা থেকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী বিভিন্ন নথি ও ২০টি কম্পিউটার জব্দ করা হয়েছে। এ সময় কার্যালয়টিতে কর্মরত সাত কর্মীকেও জিঞ্জাসাবাদ করা হয়। তবে কাউকে আটক করা হয়নি। এল সালভাদরের অ্যাটর্নি জেনারেলের দফতর থেকে বলা হয়েছে,কার্যালয়টি থেকে মোসাক ফনসেকারের চিহ্ন একদিন আগেই অপসারণ করা হয়। প্রতিষ্ঠানটির একজন কর্মীর সূত্রে জানা যায়,ফার্মটি এখান থেকে চলে যাচ্ছে। মোসাক ফনসেকার ওই শাখা থেকেও বিশ্বব্যাপী তাদের ক্লায়েন্টদের সার্ভিস দিতে সক্ষম ছিল। এল সালভাদরের স্থানীয় একটি পত্রিকার বলা হয়েছে, দেশটির নাগরিকরা কর্তৃপক্ষকে না জানিয়েই মোসাক ফনসেকাকে ব্যবহার করে গোপনে সম্পদ ক্রয় করত। তবে কোনো ধরনের বেআইনি কাজ করেনি বলে দাবি করেছে ফার্মটি। ২০১৪ সালে মোসাক ফনসেকার এক কোটি দশ লাখ গোপন নথি ফাঁস হয়ে যায়।   এসব নথির উপর দীর্ঘ অনুসন্ধান শেষে গত রোববার ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অব ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টস (আইসিআইজে) মোসাক ফনসেকার ১ কোটি ১৫ লাখ নথি ফাঁস করে।এতে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র, সরকারপ্রধান, ব্যবসায়ী, তারকা ও ক্ষমতাধর ব্যক্তি বা তাদের আত্মীয়-বন্ধুদের অর্থ পাচারের তথ্য উঠে আসে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে। এরই মধ্যে পদত্যাগ করেছেন আইসল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী সিগমুন্ড গুনলাগসন। ফাঁস হওয়া নথির ভিত্তিতে ফ্রান্স, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রিয়া, সুইডেন ও নেদারল্যান্ডসে কর ফাঁকি ও সম্পদ গোপনের বিষয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।

32 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

দীর্ঘদিন ঝুলে থাকা দুই খণ্ডে বিভক্ত ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের কমিটির ঘোষণা করা হবে রোববার। এখন থেকে ‘ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ (উত্তর)’ ও ‘ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ (দক্ষিণ) ’ এই দুটি নামে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ কাজ করবে।

নতুন কমিটি নিয়ে দলের নীতি নির্ধারণী পর্যায়ে এখন চলছে চূড়ান্ত আলোচনা। দুই মহানগর কমিটির দুই সভাপতিও প্রায় চূড়ান্ত। দলের সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা উত্তরের নেতৃত্বে আসছেন সাংসদ এ কে এম রহমতউল্লাহ এবং দক্ষিণের নেতৃত্বে আবুল হাসনাত।

আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা জানিয়েছেন, গত বছর এপ্রিলে ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনের পর কেন্দ্রীয় নেতা সাবেক খাদ্যমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাক ও সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী ফারুক খানকে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের জন্য পৃথক দুই কমিটি করার দায়িত্ব দেন শেখ হাসিনা। ফারুক খান উত্তরে ঢাকা-১১ আসনের সাংসদ এ কে এম রহমতুল্লাহ ও মো. সাদেক খানকে যথাক্রমে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক করে খসড়া কমিটি প্রস্তাব করেন। দক্ষিণের জন্য আবদুর রাজ্জাক সভাপতি হিসেবে এম এ আজিজ ও শাহে আলম মুরাদকে সাধারণ সম্পাদক প্রস্তাব করে কমিটি চূড়ান্ত করে সভানেত্রী শেখ হাসিনার কাছে জমা দেন। তবে গত ২৩ জানুয়ারি এম এ আজিজ মারা যাওয়ায় তাঁর স্থলে লালবাগ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাতকে সভাপতি হিসেবে চূড়ান্ত করেন দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা।

জানা গেছে, ঢাকা দক্ষিণের নতুন কমিটিতে সভাপতি হিসেবে এম এ আজিজের নাম চূড়ান্ত ছিল। তার মৃত্যুর পর এই পদে একজন ঢাকাইয়াকে মনোনীত করতে চাইছিলেন দলের সভাপতি শেখ হাসিনা। গত ১১ মার্চ লালবাগ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাতকে গণভবনে ডেকে নেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে প্রায় ৭ মিনিট প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তার কথা হয়।

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের এক নেতা জানান, মহানগর কমিটির উত্তর ও দক্ষিণের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণার পরই সব থানা, ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন কমিটি গঠন করা হবে।

দলীয় অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব, ঢাকাকে দুই সিটি করপোরেশনে ভাগ এবং দলীয় কর্মকাণ্ডকে গতিশীল করতে আওয়ামী লীগ এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটির নীতি নির্ধারকেরা বলেছেন।

এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ‘ঢাকাতে দুটি সিটি করপোরেশন ভাগ করা হয়েছে, সবকিছু এখন দুই ভাগে পালিত হচ্ছে। এ কারণে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের দুটি কমিটি হবে। আগামীকাল রোববার বেলা ১১টায় ধানমন্ডি কার্যালয়ে এ কমিটি ঘোষণা করা হবে।’

কেন্দ্রীয় ও ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের তিনজন নেতা বলেন, মহানগর আওয়ামী লীগের পরিধি অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। গত ৫ জানুয়ারিতেও মহানগর উত্তর এবং দক্ষিণ আলাদাভাবে কর্মসূচি পালন করেছে। এ ছাড়া সিটি করপোরেশনও দুটি। একটি কমিটিতে সবাইকে জায়গা দেওয়া সম্ভব হবে না। সুতরাং একটি কমিটি দেওয়া হলে বিশৃঙ্খলা ও গ্রুপিং হবে।

সর্বশেষ ২০০৩ সালের ১৮ জুন সম্মেলনের মাধ্যমে মেয়র মোহাম্মদ হানিফকে সভাপতি ও মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়াকে সাধারণ সম্পাদক করে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন করা হয়। ২০০৬ সালের ২৮ নভেম্বর মেয়র হানিফ মারা গেলে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে এম এ আজিজকে দায়িত্ব দেয়া হয়।

আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী প্রতি তিন বছর পর সম্মেলন করার কথা থাকলেও প্রায় ১২ বছর পর ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ২০১২ সালের ২৭ ডিসেম্বর। সম্মেলনে আগের কমিটির সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) এম এ আজিজ ও সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়াকে নতুন কমিটি ঘোষণা না হওয়া পর্যন্ত দায়িত্বরত থাকতে বলা হয়। একইভাবে আগের কমিটির স্ব স্ব পদের নেতারাই বিগত দিনে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

37 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

হায়দরাবাদে কেমন কাটছে মুস্তাফিজুর রহমানের? সময়টা যে ভালোই কাটছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাঁর নানা রকম ছবি দেখেই বোঝা যাচ্ছে। সতীর্থদের সঙ্গে পুল খেলছেন, ভক্তদের সঙ্গে সেলফি তুলছেন। মুস্তাফিজের সেজো ভাই মোখলেসুর রহমানও কাল জানালেন, এখন পর্যন্ত কোনো সমস্যায় পড়েননি বাংলাদেশ দলের এই বাঁহাতি পেসার। সবকিছু বেশ উপভোগই করছেন। মুস্তাফিজের আরও ভালো লাগার কথা টম মুডির প্রশংসা শুনে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেই হায়দরাবাদের কোচের সঙ্গে দেখা হয়েছিল তাঁর। ২০ বছর বয়সী এই বোলিং-বিস্ময়ের প্রশস্তিগাথা ছিল মুডির কণ্ঠে, ‘সে দারুণ প্রতিভাবান এক তরুণ খেলোয়াড়। সুযোগের অপেক্ষায় আছে এবং সে শেখার জন্য উন্মুখ। ক্রিকেটের মতো বড় খেলাটিকে মুস্তাফিজ নিয়েছে বেশ সহজভাবে। সেটি আমরা বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপে এরই মধ্যে দেখেছি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বড় ম্যাচ এবং ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও দেখেছি। বড় ম্যাচে সে খুবই স্বচ্ছন্দ এবং নির্ভার থাকে। আমাদের বিশ্বাস, এখানে সে দ্রুতই মানিয়ে নিতে পারবে।’ মুস্তাফিজ তো আছেনই, হায়দরাবাদের পেস আক্রমণ শক্তিশালী হয়ে উঠেছে ভারতের অভিজ্ঞ বাঁহাতি পেসার আশিস নেহরার কারণেও। দুজনকেই স্বাগত জানিয়েছেন মুডি, ‘পেস আক্রমণে আমরা কিছু বাঁহাতি বিকল্প রাখতে চেয়েছিলাম। আমাদের মনে হয়েছে, সংক্ষিপ্ততম সংস্করণে তারা খুবই কার্যকর। যেহেতু দুজনই বিশ্বমানের বোলার তাই নেহরা-মুস্তাফিজকে আমাদের দলে নেওয়া হয়েছে।’ আইপিএলে মুস্তাফিজকে খেলতে হবে বিদেশি কোটায়। সব ম্যাচে তিনি নামতে পারবেন কি না সেটি তাই নিশ্চিত নয়। তবে সুযোগ পেলে নিশ্চয়ই আস্থার প্রতিদান দিতে চাইবেন মুস্তাফিজ। হায়দরাবাদের প্রথম ম্যাচ ১২ এপ্রিল, চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে মুস্তাফিজদের প্রতিপক্ষ রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু।

37 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

৯ এপ্রিল দুপুর ১২টায় চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স এর মিলনায়তনে সিএমসিসিআই প্রেসিডেন্ট খলিলুর রহমান’র সভাপতিত্বে এনবিআর চেয়ারম্যান মো: নজিবুর রহমান এর সাথে ২০১৬-১৭প্রাক বাজেট আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য ও পদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ, স্থানীয় কর এবং কাস্টম কমিশনারবৃন্দ, সিএমসিসিআই পরিচালক, সদস্যবৃন্দ, চিটাগাং ট্যাক্সবার এসাসিয়েশান এর প্রেসিডেন্ট এবং সেক্রেটারী এবং সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন।
সভায় সিএমসিসিআই ভাইস প্রেসিডেন্ট আলী হোসেন আকবর আলী, ভাইস প্রেসিডেন্ট এ.এম. মাহবুব চৌধুরী সহ পরিচালক মোহাম্মদ আব্দুছ ছালাম, ড: মহসিন জিল্লুর করিম, ইঞ্জিনিয়ার মো: শাখাওয়াত হোসেন, এম.এ. মালেক, লিয়াকত আলী চৌধুরী, এম. এ. মালেক, আলহাজ্ব মো: শফি, মো: লোকমান হাকিম, মো: ডব্লিউ আর.আই.মাহমুদ এবং মোহাম্মদ মহসিন। সূচনা বক্তব্য পাঠ করেন সিএমসিসিআই ভাইস প্রেসিডেন্ট আলী হোসেন আকবর আলী। পরে এ.এম. মাহবুব চৌধুরী বিস্তারিত বাজেট প্রস্তাব পেশ করেন।তারা শিল্প বান্ধব চট্রগ্রাম ও সত্যিকার বানিজ্যিক রাজধানী প্রতিষ্টায় উন্নয়নে আলাদা বাজেটের প্রস্তাব ও করেন ।
চট্রগ্রাম চেম্বার ঃ
এর আগে সকাল ১১টায় চট্রগ্রাম চেম্বারের আয়োজনে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে মাহবুবুল আলমের সভাপতিত্বে প্রাক-বাজেট বিষয়ে এক মতবিনিময় সভাতে এনবিআর চেয়ারম্যান মো: নজিবুর রহমান প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেছেন,বর্তমান সরকার অর্থনৈতিক উন্নয়নে ২৫বছরের একটি বিশাল গোল নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে । আর শিল্প বান্ধব ও করের বোঝা কমিয়ে সামনে একটি ব্যবসায়ী মনোভাব প্রুত বাজেট ঘোষনা করতে যাচ্ছেন সরকার ।২য় রাজধানী খ্যাত চট্রগ্রাম কে আলাদা বাজেটের বিষয়ে অর্থমন্ত্রীকে অবগতি করবেন বলেও সভাতে জানান এনবিআর চেয়ারম্যান ।আর আগামী ৫বছরের মধ্যেই মধ্যম আয়ের রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বে বাংলাদেশ পরিগণিত হবে ।

সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন,চট্রগ্রাম চেম্বার থেকে শুল্ক,ভ্যাট,আয়কর সংক্রান্ত ১৯৮টি প্রস্তাব জাতীয় রাজস্ব বোর্ড পাঠিয়েছি ।এর মধ্যে শুক্ল-১৪২টি,ভ্যাট-২১টি,আয়কর-৫৫টি প্রস্তাব রয়েছে ।ভৌগলিক অবস্থানগত কারণে চট্রগ্রামের গুরুত্ব খুবই অপরিসীম।সেই লক্ষে দেশ-বিদেশী বিনিয়োগ কারীদের আকৃষ্ট করতে ও বিনিয়োগ সৃষ্টির প্রয়াসে অবকাঠামোগত উন্নয়ন জরুরী ।
কর্ণফুলী টার্নেল,বন্দও সম্প্রসারণ,বে-টার্মিনাল নির্মাণ,চট্রগ্রাম-ঢাকা হাইওয়ের ৪ লাইনের কাজ শুরু করা ,কয়লা ভিত্তিক১৩২০মেগাওয়াট ক্ষমতার বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন করা এবং মিরস্বরাই ও আনোয়ারা স্পেশাল ইকোনিমিক জোন তৈরি,রিং রোড সমূহ দ্রুত বাস্তবায়ন করার জন্য পর্যাপ্ত পরিমান বাজেট বরাদ্ধ করে প্রকল্প অনুমোদন করার জোর দাবি তুলেন ।এছাড়া সভাপতি বাড়ী ভাড়া বিষয়টি আয়কর নির্ধারনে ১০%হারে না বাড়াতে এবং ব্যাংক নীতিমালা না আনার জন্য এনবিআর চেয়ারম্যান কে অনরোধ জানান ,প্রতি বছর বাড়ী ভাড়া বাড়ানো কোন মতেই সম্বভ নহে বলে জানান।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন-চেম্বারের সিৎ সহ-সভাপতি নুরুন নেওয়াজ সেলিম, সহ -সভাপতি-সৈয়দ জামাল আহম্মদ,রাজস্ব বোর্ড সদস্য-মোঃ ফরিদ উদ্দিন,ব্যারিষ্টার জাহাঙ্গীর হোসেন ,পারভেজ উকবাল,মোঃ বেলাল উদ্দিন,চেম্বার পরিচালক-মাহফুজূল হক শাহ,ইঃ মোঃ আলী আহম্মদ সহ বিভিন্ন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের নেতৃবৃন্দ ।

34 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠানে কড়াকড়ি আরোপের জন্য সরকারকে সাধুবাদ জানিয়েছে ওলামা লীগ। একই সঙ্গে বর্ষবরণের অনুষ্ঠান পুরোপুরি বন্ধেরও দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি। শনিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি শেষে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ওলামা লীগ এ দাবি জানায়। আর প্রথমবারের মতো চালু হওয়া বৈশাখী উৎসব ভাতা বাদ দিয়ে ঈদ-ই মিলাদুন্নবিতে উৎসব ভাতা দেয়ারও দাবি জানিয়েছেন সংগঠনটির নেতারা। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘পহেলা বৈশাখের নামে চারুকলার গাঁজাখোর মিডিয়া ও পুঁজিবাদী বেনিয়াগোষ্ঠি বাণিজ্য করছে। ওদের শোষণ থেকে জনগণকে বাঁচাতে হবে।’ পহেলা বৈশাখ মুসলমানদের ‘ইসলামহীন’ করার ‘অপতৎপরতা’ বলেও মন্তব্য করেছে ওলামা লীগ। মানববন্ধনে ‘জাতীয় শিক্ষানীতিকে ইসলামবিদ্বেষী’ অ্যাখ্যা দিয়ে বলা হয়, ‘শিক্ষামন্ত্রী আওয়ামী লীগের কাঁধে চড়ে তার নাস্তিক্যবাদী শিক্ষা দর্শন ৯৮ ভাগ মুসলমানের ওপর চাপিয়ে দিচ্ছে।’ ওলামা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মাওলানা মুহম্মদ আবুল হাসান শেখ শরীয়তপুরীর পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দাবি করা হয়, আওয়ামী লীগ ‘সমর্থিত’ সমমনা ১৩টি ইসলামিক সংগঠন এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

31 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

বাংলাদেশের আকাশে আজ ১৪৩৭ হিজরি সনের পবিত্র রজব মাসের চাঁদ দেখা গেছে। ফলে আগামীকাল ৯ এপ্রিল ২০১৬ খ্রি. শনিবার থেকে পবিত্র রজব মাস গণনা শুরু হবে। সেই হিসেবে আগামী ২৬ রজব ১৪৩৭, ৪ মে বুধবার দিবাগত রাতে সারাদেশে পবিত্র লাইলাতুল মি‘রাজ পালিত হবে।
আজ সন্ধ্যায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মুকাররম সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়য়ের যুগ্ম-সচিব মোঃ আমজাদ আলী।
সভায় প্রধান তথ্য অফিসার এ কে এম শামীম চৌধুরী, বাংলাদেশ টেলিভিশনের পরিচালক (প্রশাসন) শাখাওয়াত হোসেন, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ আবদুর রহমান, স্পারসোর সিএসও মোঃ শাহ আলম, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সচিব মোঃ অহিদুল ইসলাম, ঢাকা আলিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ প্রফেসর সিরাজ উদ্দিন আহমেদ, বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, চকবাজার শাহী জামে মসজিদের খতীব মাওলানা শেখ নাঈম রেজওয়ান ও লালবাগ শাহী জামে মসজিদের খতিব আবু রায়হান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

38 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

সাউথ কোরিয়ান প্রতিষ্ঠান স্যামসাং নতুন এক প্রযুক্তির জন্য পেটেন্ট করল। আর তা হলো স্মার্ট কন্টাক্ট লেন্স প্রযুক্তি। যেখানে ব্যবহারকারীরা চোখে লেন্স পড়ে অগমেন্টেড রিয়েলিটির অভিজ্ঞতা নিতে পারবে। এই বিশেষ কন্টাক্ট লেন্সে থাকবে একটি ছোট ডিসপ্লে, একটি ক্যামেরা, একটি অ্যান্টেনা এবং একাধিক সেন্সর। চোখের পাতাই নিয়ন্ত্রণ করবে এই স্মার্টলেন্স ক্যামেরা। এমন কী পলক ফেললেই উঠে যাবে ছবি। চোখের পলক ফেলা বা নড়াচড়ার মাধ্যমে ব্যবহারকারী ডিসপ্লে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে। যেহেতু ডিভাইসটি অনেক ছোট তাই পাওয়ার প্রসেসের জন্য এটিকে স্মার্টফোনের সঙ্গে যুক্ত করার মতো করে ডিজাইন করা হবে। পেটেন্ট অ্যাপ্লিকেশন অনুযায়ী, এই কন্টাক্ট লেন্সটি স্মার্ট গ্লাসের তুলনায় আরো ভালো ইমেজ কোয়ালিটি দেবে। তবে স্যামসাংয়ের এই পেটেন্ট করা পণ্য কবে নাগাদ আসবে সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছুই জানা যায়নি। সার্চ জায়ান্ট গুগল ইতোমধ্যে এ ধরনের ডিভাইস ডেভেলপ করেছে। আর বর্তমানে এই লেন্স পরীক্ষামূলক অবস্থায় আছে। এই লেন্সটি চোখের পানি থেকে গ্লুকোজ পরিমাপ করে ডায়াবেটিক নির্ণয় করতে পারে।

41 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

0
(0)

বাঁশখালিতে কাফনের কাপড় পরে উপজেলা ঘেরাও করার নামে কোন ধরণের বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি করার চেষ্টা করা হলে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী কঠোর ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবে বলে হুঁসিয়ারী উচ্চারণ করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি শনিবার চট্টগ্রামের বোয়ালখালিতে নবনির্মিত ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন উদ্বোধন করতে এসে দুপুর দুইটায় সাংবাদিকদের সাথে এক সংক্ষিপ্ত মতবিনিময়কালে এ হুঁসিয়ারীর কথা জানান।

উল্লেখ্য, শুক্রবার বাঁশখালির গন্ডামারায় এলাকাবাসীর এক সমাবেশ থেকে গন্ডামারা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও বসতভিটা ও গোরস্থান রক্ষা সংগ্রাম কমিটির আহ্বায়ক লেয়াকত আলী ২৪ ঘন্টার মধ্যে নির্মাণাধীন কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র বাঁশখালি থেকে সরানোর ঘোষণা না দিলে রোববার সকালে কাপনের কাপড় পড়ে উপজেলা প্রশাসন ঘেরাও করার কর্মসুচি দেন।

বিকালে স্বরাষ্টমন্ত্রী পৌরসভার ফায়ার ব্রিগেট চত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে নতুন এ ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন উদ্বোধন করবেন।

মতবিনিময়কালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কেউ শান্তিপূণ কর্মসূচি পালন করলে কোন সমস্যা নেই। কিন্তু শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির নামে কোন ধরণে বিশৃঙ্খলা মেনে নেয়া হবে না।

মন্ত্রী বাঁশখালি কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র এবং সম্প্রতি পরিস্থিতি বিষয়ে বলেন, বাঁশখালির এ আন্দোলনের পিছনে কারো ব্যাক্তি স্বার্থ নয়েছে কিনা বা কাদের প্ররোলচনায় এ হত্যাকান্ড হয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

সম্প্রতি সময়ে দুই ব্লগার হত্যাকান্ডের সাথে কারা জড়িত এমন প্রশ্নের জবাবে সরাসরি কোন মন্তব্য করতে রাজি না হয়ে তিনি বলেন, তদন্ত সংস্থার প্রতি সরকারের আস্থা রয়েছে বিষয়টি তারা তদন্ত করছেন। এ বিষয়ে বেশী কিছু মন্তব্য করা ঠিক হবে না।

স্থানীয় সংসদ সদস্য ও জাসদ নেতা মাঈনুদ্দিন খান বাদলের সরোয়ালীস্থ গ্রামের বাড়িতে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় অনুষ্ঠানে অন্যন্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সংসদ সদস্য মাঈনুদ্দিন খান বাদল, রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা এহসানুল হায়দার বাবুল, দক্ষিণ জেলা জাসদ নেতা আব্দুল কাদের সুজন, বোয়ালখালি উপজেলা জাসদ সভাপতি মনসপ আলী, সাধারণ মনিরুদ্দিন খান, জেলা পুলিশ সুপার হাফিজ আক্তার প্রমুখ।

44 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

  My Page:

No posts found.
24,539 views

How useful was this post?

Click on a star to rate it!